Churn : Universal Friendship
Welcome to the CHURN!

To take full advantage of everything offered by our forum,
Please log in if you are already a member,
or
Join our community if you've not yet.

Share
Go down
avatar
Primary
Primary
Posts : 113
Points : 311
Reputation : 3
Join date : 2018-03-05
View user profile

Bishnupur tour বিষ্ণুপুর ভ্রমন

on Tue Mar 13, 2018 2:23 pm
#বিষ্ণুপুর_আমার_হৃদয়ে/#Bishnupur_in_my_heart♥️::
*************************
• রোজ নাকে-মুখে গুঁজে, ভুঁড়িটা বেল্ট দিয়ে বেঁধে, পায়ে বুট গলিয়ে টগ-বগ করতে করতে ব্যাগ কাঁধে অফিস দৌড়াতে
avatar
Primary
Primary
Posts : 113
Points : 311
Reputation : 3
Join date : 2018-03-05
View user profile

Re: Bishnupur tour বিষ্ণুপুর ভ্রমন

on Tue Mar 13, 2018 2:27 pm

#উপরোক্ত_স্থানগুলোর_সংক্ষিপ্ত_বিবরণী::

#রাসমঞ্চ_বা_১০১_দুয়ারী::
মল্লরাজা বীরহাম্বি ১৬০০ খ্রিস্টাব্দে এই মঞ্চটি তৈরি করেন। এর নিচের বেদি মাকড়া পাথরের তৈরি, এক অভিনব পিরামিড আকৃতির স্থাপত্য, এর গায়ের যে প্লাস্টার আছে তাকে স্থানীয় ভাষায় "পঙ্খের প্রলেপ" বলে। এর আরেক নাম "১০১ দুয়ারী" কারন ১০১টি দুয়ার আছে কিন্ত দরজা/পাল্লা নেই!!
avatar
Primary
Primary
Posts : 113
Points : 311
Reputation : 3
Join date : 2018-03-05
View user profile

Re: Bishnupur tour বিষ্ণুপুর ভ্রমন

on Tue Mar 13, 2018 2:29 pm

#মদনমোহন_মন্দির:
মল্লরাজা দুর্জন সিংহ এই এক রত্ন মন্দিরটির প্রতিষ্ঠাতা । এর গায়ে কৃষ্ণের লীলা ও পৌরাণিক কাহিনী চিত্রিত আছে। এই স্থানে মদনমোহনের নিত্য সেবা, রাস ও দোল উৎসব অনুষ্ঠিত হয় এখানে। কেনাকাটার জন্য এর সামনে বেশ কয়েকটি দোকান পেয়ে যাবেন। দোকানগুলোর মধ্যে বিভিন্ন ধরনের মুখোশ দিয়ে সাজানো একটি দোকানে আমার দৃষ্টি আটকে যাচ্ছিল বার বার। এখানে সুলভ শৌচাগার এর সুবিধা পেয়ে যাবেন।
#শ্যমরায়_মন্দির::
টেরাকোটার কাজে সমৃদ্ধ , পোড়ামাটির ইট নির্মিত পঞ্চ রত্ন মন্দিরটি মল্লরাজা রঘুনাথ সিংহ প্রতিষ্ঠা করেন। এই মন্দিরের গায়ে মহাভারতের দৃশ্য চিত্রিত দেখা যায়।আমি শুধু অবাক হয়ে ভাবি যে এত নক্সা করতে কত সময় , পরিশ্রম ও ধৈর্য লেগেছিল শিল্পীদের!
#গুমগড়::
মল্লরাজা বীরসিংহ এটি তৈরি করেছিলেন। রাজবাড়ির জলের ট্যাংক হিসাবে ব্যবহার হত বা এখানে অপরাধীদের এনে গুম করে দেওয়া হত, যেকোনো একটি ঠিক। এখানে দ্বিতীয় তথ্যটি গ্রহণ করলে মনে বেশ ভয়, রোমাঞ্চ হয় বলে অপরাধীদের শাস্তির তথ্যটি আমার ভালো লাগলো। নাহলে বর্গাকার ইঁটের তৈরি একটি ঘর বিশেষ ছাড়া আর কিছু নয় এটি।
#মৃন্ময়ী_মন্দির:Sadদুর্গা মন্দির)
প্রথম দর্শনে এটিকে মন্দির বলে মনে হয় না, মনে হয় কোনো লাইব্রেরির সামনে এসে দাঁড়িয়েছি।
মল্লরাজা জগৎমল্ল ৯৯৭ খ্রিস্টাব্দে দৈবাদেশ পেয়ে মন্দির ও মূর্তিটি প্রতিষ্ঠা করেন। দুর্গা মূর্তিটি গঙ্গামাটির তৈরি। এই মন্দিরের নিত্য পূজা হয়, মহাঅষ্টমীর সন্ধিক্ষণে তোপধ্বনি করা হয়, তবে তোপটা খুঁজে পেলাম না! দুপুরে ভোগ খাবার ব্যবস্থা আছে, তবে সময়ে নাম লেখাতে হবে। এই মন্দিরের গায়ে টেরাকোটার কাজ নেই! এই মন্দিরের পাশেই রাজবাড়ির ধ্বংসস্তুপ, "বিনা অনুমতিতে প্রবেশ নিষিদ্ধ" বোর্ড ঝুলানো। মন্দিরের সামনেও কেনাকাটা করার জন্য দোকান পেয়ে যাবেন। মন্দির প্রাঙ্গণে ঢুকতে ডান হাতে যে দোকানটি পরে সেটি বাকিগুলোর থেকে অপেক্ষাকৃত সস্তায় জিনিস দিচ্ছিল। তিনটি দোকানে বিস্তর দরাদরি করার পর যখন কিছু কিনবো বলে ঠিক করেছি তখনই টোটো ভাই পরিত্রাতা রূপে আবির্ভুত হয়ে এমন তারা লাগালো, কেনাকাটা ফেলে লাফ দিয়ে টোটোতে গিয়ে বসে পড়লাম(আমার পয়সা বেঁচে গেল)।
avatar
Primary
Primary
Posts : 113
Points : 311
Reputation : 3
Join date : 2018-03-05
View user profile

Re: Bishnupur tour বিষ্ণুপুর ভ্রমন

on Tue Mar 13, 2018 2:32 pm

#জোড়বাংলা::
মল্লরাজা রঘুনাথ সিংহ এই অদ্ভুত দর্শন মন্দিরটি স্থাপন করেন। মন্দিরের গায়ে টেরাকোটার কাজের মাধ্যমে রামায়ন মহাভারতের বিভিন্ন দৃশ্য ফুটিয়ে তোলা আছে। খানিকক্ষণ পর্যবেক্ষণের পর মনে হল দুটি আলাদা মন্দিরকে পাঞ্চ করে তৈরি হয়েছে এই মন্দিরটি। বেশ আলাদা প্রশংসনীয় গঠণশৈলী। এর গায়ে যে টেরাকোটার কাজ দেখা যায় তা সবার থেকে আলাদা ভাবে নজর কাড়বে। এর সামনে অল্প কিছু অস্থায়ী দোকান বসে, তার মধ্যে কাঠের তৈরি বিভিন্ন দ্রব্য বেশ মনে ধরেছিল।
#রাধাশ্যাম_মন্দির::
মল্লরাজা চৈতন্য সিংহ মাকড়া পাথরের এই মন্দিরটি ১৭৫৮ খ্রিস্টাব্দে নির্মাণ করেন। এই মন্দিরে রাধা-শ্যাম , নিতাই ও জগন্নাথ এর মূর্তি পূজিত হয়। মন্দিরের এক পাশে আছে তুলসী মঞ্চ,রান্না ঘর ও আরেক পাশে আছে নহবত খানা। নিতাই ও জগন্নাথ দেবের মূর্তি সোজা তাকালে দেখতে পাবেন না, মন্দিরের গর্ভগৃহের গ্রিলে আপনার মুখটি সেটে দিয়ে বাম দিকে তাকালে দেখতে পাবেন ওখানে রাখা আছে।
#রাধালালজিউ_মন্দির:
মল্লরাজা বীরসিংহ, শ্রীরাধিকা ও কৃষ্ণের আনন্দের জন্য এই পাথরের মন্দিরটি প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে আমরাই এই মন্দির দেখে আনন্দ পাচ্ছি, এই মন্দিরে বিগ্রহ নেই, অন্য কোথাও স্থানান্তরিত করা হয়েছে। এই মন্দির দেখতে-দেখতে একটা কথা মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছিল, এই স্থাপত্যগুলি কত বছর আগে নির্মাণ হয়েছে, কত প্রাকৃতিক দুর্যোগের সম্মুখীন হয়ে আজও স্বমহিমায় দাঁড়িয়ে!
#বড়_পাথরের_দরজা_ও_ছোট_পাথরের_দরজা ::
এই দুটি মাকড়া পাথরের দরজা তখনকার বিষ্ণু পুরের গুরুত্ব পূর্ণ তোরণ ছিল। এখন দেখে মনে হল, কলকাতায় এমন একটি যায়গা থাকলে আড্ডার আসর বসে যেত এর উপর।
#দলমাদল_কামান::
শোনা যায় ১৭৪২ খ্রিস্টাব্দে বর্গী বাহিনী নগর আক্রমন করলে স্বয়ং রাধামাধব এই কামান থেকে গোলাবর্ষণ করেন এবং মল্ল ভূমি রক্ষা করেন। ছোটোবেলায় বাবার কোলে বসে এই দলমাদল কামানের গল্প শুনতাম, কেষ্ট ঠাকুর নিজেই এই কামান চালিয়েছিল! আজ দলমাদলের সামনে দাঁড়িয়ে সেই সময়ের কথা মনে পরে গেল, আর রোমাঞ্চে সর্বাঙ্গ কাঁটা দিয়ে উঠতে থাকল। বিশ্বাসই হচ্ছিল না আমি সেই কামানের সামনে দাঁড়িয়ে!বিশ্বাস-অবিশ্বাসের চোখ নিয়ে বেশ কিছুক্ষণ তাকিয়ে রইলাম কামানটির দিকে। ১৯১৯ সালে ব্রিটিশ সরকার সকলের দর্শনের জন্য কামানটিকে একটি বেদির উপর স্থাপন করেন।
avatar
Primary
Primary
Posts : 113
Points : 311
Reputation : 3
Join date : 2018-03-05
View user profile

Re: Bishnupur tour বিষ্ণুপুর ভ্রমন

on Tue Mar 13, 2018 2:33 pm

#রাধামাধব_মন্দির::
গোপাল সিংহের পুত্রবধূ চুরামণি দেবী ১৭৩৭ খ্রিস্টাব্দে মন্দিরটি তৈরি করেন। মন্দিরের গায়ে টেরাকোটার কাজে পুরানের কাহিনী বর্ণিত আছে। এই কাহিনী দেখবো না ছবি তুলবো এটাই বুঝতে পারছিলাম না। ও দিকে আবার টোটো ভাই তারা লাগাচ্ছিল।
#রাধাগোবিন্দ_মন্দির::
মল্লরাজা কৃষ্ণ সিংহ ঝামা পাথরের এই মন্দিরটি ১৭২৯ খ্রিস্টাব্দে তৈরি করেন।এটি একটি এক রত্ন মন্দির বিশেষ। ইটের পর ইট সাজিয়ে এই মন্দিরগুলির চূড়া এবং ঢালু ছাদ কিভাবে তৈরি করেছেন তখনকার কারিগররা ভাবলে অবাক হতে হয়!
#লালগড়::
এটি মূলত জলাধার, ল্যাটেরাইট পাথরের তৈরি। জলাধারটির মাঝখানে ৪০ ফুট গভীর একটি কুয়ো আছে, এটিকে ঘিরে একটি উদ্যান গড়ে তুলেছে বাঁকুড়ার জেলা পরিষদ।
#আচার্য_যোগেশচন্দ্র_মিউজিয়াম::
পাল ও সেন যুগের সময় থেকে বিভিন্ন মূর্তি, শিল্পকলা, পুঁথি ও বিভিন্ন সামগ্রী এই মিউজিয়ামটিতে আছে। বিষ্ণুপুরের সমাজ, সংস্কৃতি ও ইতিহাস সম্বন্ধে সম্যক ধারণা পেতে হলে এই মিউজিয়ামটি দেখতেই হবে আপনাকে। এটি দেখতে আলাদা টিকিট কাটতে হবে।
#ছিন্নমস্তা_মন্দির::
স্বর্গীয় কৃষ্ণ চন্দ্র গুই ১৩৮০ সালে এই মন্দিরটি প্রতিষ্ঠা করেন। দশমহাবিদ্যা এর মধ্যে পঞ্চম মহাবিদ্যা হলেন দেবী ছিন্নমস্তা, দেবীর আরেক নাম প্রচন্ড চন্ডিকা। নাট মন্দিরটি বেশ বড়,পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন। নতুন রং করা হয়েছে। সম্ভবত পশ্চিমবঙ্গের সবচেয়ে বড় ও পুরানো ছিন্নমস্তা দেবীর মন্দির এটি। এই মন্দিরের গায়ে টেরাকোটার কাজ নেই। এর সামনে টেরাকোটা, ডোগরা ইত্যাদি ঘর সাজাবার জিনিসের অনেক দোকান পেয়ে যাবেন।
• যেখান থেকে টোটো ভাড়া করেছিলেন, সেখানেই ভালো হোটেল আছে, লাঞ্চটা
avatar
Primary
Primary
Posts : 113
Points : 311
Reputation : 3
Join date : 2018-03-05
View user profile

Re: Bishnupur tour বিষ্ণুপুর ভ্রমন

on Tue Mar 13, 2018 2:34 pm

#বিষ্ণুপুর_সম্বন্ধে_কিছু_কথা::
বিষ্ণুপুরে প্রায় ৬২ জন রাজা পর্যায়ক্রমে তাদের শাসনকাল অতিবাহিত করেছেন। এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ছিলেন আদি মল্ল, জগৎমল্ল, বীরহাম্বি,রঘুনাথ সিংহ প্রমুখ; সেই সময়ের মধ্যে অনেক গর্বের ইতিহাস রয়েছে। শেষ রাজা ছিলেন কালীপদ সিংহঠাকুর; দুর্গা মন্দিরের সন্নিকটে তাদের বংশধরেরা আজও বসবাস করেন। এই বাঁকুড়ার মেয়ে হলেন শ্রী শ্রী মা সারদা। সুতরাং এটা বলার অপেক্ষা রাখে না যে এই মাটি কতটা ধন্য।

‎#ব্যতিক্রম::
Sponsored content

Re: Bishnupur tour বিষ্ণুপুর ভ্রমন

Back to top
Permissions in this forum:
You cannot reply to topics in this forum